ঢাকা | জুলাই ১৮, ২০২৪ - ৪:৩৪ পূর্বাহ্ন

শিরোনাম

যুদ্ধবিরতির প্রস্তাবে রাজি হামাস, ইসরায়েল বলছে অগ্রহণযোগ্য

  • আপডেট: Tuesday, May 7, 2024 - 1:41 am

জাগোজনতা অনলাইন : ফিলিস্তিনের স্বাধীনতাকামী গোষ্ঠী হামাস জানিয়েছে, গাজায় ইসরায়েলের সঙ্গে চলমান সংঘাতে মিসর ও কাতারের একটি যুদ্ধবিরতির প্রস্তাবে রাজি হয়েছে তারা। সোমবার (৬ মে) এক বিবৃতিতে এ কথা জানিয়েছে হামাস। তবে ইসরায়েলের এক কর্মকর্তা বলেছেন, মিসরের যে প্রস্তাবে হামাস রাজি হয়েছে, তা ইসরায়েলের কাছে গ্রহণযোগ্য নয়। ব্রিটিশ বার্তা সংস্থা রয়টার্স এ খবর জানিয়েছে।

এক বিবৃতিতে হামাস বলেছে, গোষ্ঠীটির রাজনৈতিক প্রধান ইসমাইল হানিয়েহ কাতারের প্রধানমন্ত্রী মিসরের গোয়েন্দাপ্রধানকে তাদের যুদ্ধবিরতির প্রস্তাবে সম্মতির বিষয়ে জানিয়েছেন। তবে এতে বিস্তারিত কিছু বলা হয়নি

তাৎক্ষণিকভাবে এই প্রস্তাবের বিস্তারিত শর্ত সম্পর্কে জানতে পারেনি রয়টার্স।

হামাস এই দাবি করলেও ইসরায়েলের এক কর্মকর্তা বলেছেন, গাজায় কোনও যুদ্ধবিরতির চুক্তি নিয়ে সমঝোতা হয়নি। যে প্রস্তাবে হামাস রাজি হয়েছে, তা মিসরের প্রস্তাবের একটি তুলনামূলক নমনীয় সংস্করণ। এতে এমন সিদ্ধান্তের কথা বলা হয়েছে, যা ইসরায়েল মেনে নেবে না।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক ওই ইসরায়েলি কর্মকর্তা বলেছেন, এটি এমনভাবে করা হয়েছে, যাতে মনে হয়ে ইসরায়েল চুক্তি মেনে নিতে অস্বীকৃতি জানাচ্ছে।

গত বছরের নভেম্বরে এক সপ্তাহের বিরতির পর থেকে গাজায় চলমান সংঘাতে যুদ্ধবিরতির আলোচনায় এখন পর্যন্ত কোনও সমঝোতা হয়নি।

গাজার দক্ষিণাঞ্চলীয় রাফাহ শহরের একাংশ থেকে ফিলিস্তিনিদের সরে যেতে ইসরায়েলি নির্দেশের কয়েক ঘণ্টা পর হামাসের পক্ষ থেকে এই ঘোষণা দেওয়া হয়েছে। এই শহরটি গাজাবাসীর শেষ নিরাপদ আশ্রয়স্থল হিসেবে কাজ করছে। এখানে গাজার ২৩ লাখ বাসিন্দার প্রায় অর্ধেক আশ্রয় নিয়েছেন।

ইসরায়েলি সেনাবাহিনীর মুখপাত্র রিয়ার অ্যাডমিরাল ড্যানিয়েল হাগারি বলেছেন, গাজায় জিম্মি মুক্তির সব প্রস্তাব গুরুত্বের সঙ্গে বিবেচনা করা হচ্ছে। একই সময়ে গাজায় সেনাদের অভিযান চলমান রয়েছে।

এদিকে ইরানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী হোসেইন আমির আব্দোল্লাহিয়ান বলেছেন, সোমবার এক ফোনালাপে হামাস-প্রধান ইসমাইল হানিয়েহ তাকে বলেছেন, মিসর ও কাতারের প্রস্তাবে রাজি হয়েছে হামাস। বল এখন ইসরায়েলের কোর্টে।

ইরানি মন্ত্রী আরও বলেছেন, হামাস-প্রধানের সঙ্গে গাজায় যুদ্ধ বন্ধের বিষয়ে আলোচনা হয়েছে।

তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রজব তাইয়্যেব এরদোয়ান বলেছেন, হামাস নেতার সঙ্গে তিনিও ফোনালাপ করেছেন। যুদ্ধবিরতির প্রস্তাবে হামাসের রাজি হওয়া নিয়েও তাদের আলাপ হয়েছে।

সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম এক্সে এরদোয়ান লিখেছেন, তুরস্কের পরামর্শে হামাসের সিদ্ধান্তকে তিনি ইতিবাচক হিসেবে দেখছেন। দীর্ঘমেয়াদি যুদ্ধবিরতির জন্য ইসরায়েলকেও পদক্ষেপ নিতে হবে।

যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র ম্যাথিউ মিলার বলেছেন, যুদ্ধবিরতির প্রস্তাবে হামাসের সম্মতির বিষয়ে পূর্ণাঙ্গ পর্যালোচনার আগ পর্যন্ত মন্তব্য করা থেকে বিরত থাকবে যুক্তরাষ্ট্র। তবে হামাসের প্রতিক্রিয়ার বিষয়টি তিনি নিশ্চিত করেছেন।