ঢাকা | এপ্রিল ২১, ২০২৪ - ৬:০৪ অপরাহ্ন

কক্সবাজারের কুতুবদিয়ায় জেলিফিশের আতঙ্কে সাগরে যাচ্ছে না জেলেরা

  • আপডেট: Monday, March 18, 2024 - 7:58 am
আব্বাস সিদ্দিকী (কুতুবদিয়া)।।  সাগরে ক্ষতিকর সামুদ্রিক প্রজাতি হচ্ছে জেলিফিশ। এটি সাধারণত গ্রীষ্মকালে খরা নোনা পানি থেকে সৃষ্টি হয়। স্থানীয়দের ভাষায় এটিকে “প্যারকি” বলে। সাগরে এ জেলিফিশ বৃদ্ধি পেলে মাছের আনাগোনাও কমে যায়। শুধু তাই নয়, মানুষের গায়ের চামড়া এবং জেলেদের জালেরও ক্ষতি হয়। ফলে, সাগরে মাছ শিকারে যাচ্ছে না কুতুবদিয়ার বেশির ভাগ জেলেরা। তবে, বৃষ্টি হলে বা সাগরে মিষ্টি পানি বৃদ্ধি পেলে এটি দূর হতে পারে।
স্থানীয় জেলেরা জানান, তারা মাছ না পেয়ে সাগর থেকে খালি হাতে ফিরেছে। খরা নোনা পানি থেকে সৃষ্টি জেলিফিশ বা প্যারকির কারণে নিজেদের জাল নিরাপদে রাখতে সাগর থেকে জাল তুলে এনেছে।
কুতুবদিয়া উপজেলার মেরিন ফিশারিজ কর্মকর্তা নাজমুস সাকিব বলেন, সাগরে বিষাক্ত ধরনের জেলিফিশের পরিমান বেড়ে গেছে। যা মানুষের শরীরের সংস্পর্শে আসলে এমন অস্বস্তি হতে পারে। এ জেলিফিশের প্রধান খাদ্য মাছ ও মাছের ডিম। মাছ ও ডিম খেয়ে ফেলার কারনে সাগরের মাছ কমে যাচ্ছে। তিনি আরও বলেন, সামুদ্রিক প্রাণী কচ্ছপ কমে যাওয়া ও সামুদ্রিক দূষনের ফলে বিশ্বজুড়ে সাগরে জেলিফিশের বিস্তার বাড়ছে। এটি কিভাবে দূর করতে হবে এবিষয়ে ব্যাপক গবেষণার প্রয়োজন রয়েছে।