ঢাকা | জুলাই ১৮, ২০২৪ - ৫:৪৭ পূর্বাহ্ন

শিরোনাম

রানা প্লাজা দুর্ঘটনায় আমার কি মায়া লাগে নাঃ মুরাদ জং

  • আপডেট: Tuesday, December 26, 2023 - 5:26 pm

ইউসুফ আলী খান।। 

আসন্ন দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের ঢাকা-১৯-(সাভার আশুলিয়া) সংসদীয় আসনের স্বতন্ত্র প্রার্থী ও সাবেক সংসদ সদস্য হ্যামিলিওনের বাঁশিওয়াল খ্যাত তালুকদার তৌহিদ জং মুরাদের নির্বাচনী প্রচারণায় মানুষের ঢল।

মঙ্গলবার (২৬ ডিসেম্বর) বিকেলে সাভারের ব্যাংক টাউন এলাকায় কর্মী সমর্থকদের নিয়ে নির্বাচনী প্রচারণায় আসলে এলাকার জনগণ ও ভোটাররা ফুল দিয়ে বরণ করে নেন মুরাদ জংকে । পরে এলাকার সাধারণ মানুষদের এবং ভোটারদের নিয়ে নির্বাচনী প্রচারণায় নামলে এলাকাতে জনসমুদ্রে পরিণত হয়।

এ সময় ভোটারদের কাছে ভোট প্রার্থনা করেন এবং সাধারণ জনগণের কাছে দোয়া চেয়ে মুরাদ জং বলেন, আমি বিগত ১০ বছর আপনাদের ছেড়ে দূরে ছিলাম। আমি এবার আপনাদের কাছে এসেছি। আমার জন্য কি মায়া লাগে না? যদি আমার জন্য মায়া লাগে তাহলে আপনারা সবাই ঈগল মার্কায় ভোট দিয়ে আমাকে আবার নির্বাচিত করে আপনাদের সেবা করার সুযোগ করে দিবেন।

এ ছাড়া তিনি উপস্থিত জনগণের কাছে প্রশ্ন রেখে বলেন রানা প্লাজা কি আমি ফালাইছি? রানা প্লাজার মালিক কি আমি? রানা প্লাজায় কি আমার কোন ব্যবসা আছে? রানা প্লাজা দুর্ঘটনায় যারা মারা গেছে তাদের জন্য কি আমার মায়া লাগে না? আমিও তো মানুষ তাহলে কেন আমাকে রানা প্লাজার ইস্যুতে দোষী করা হলো এর বিচার আমি আপনাদের কাছে দিয়ে গেলাম।

তিনি আরও বলেছেন, ২০০১ সালে আমাকে নৌকার মনোনয়ন দিলে আপনাদের ভোটে আমি সর্বোচ্চ ভোট পেয়ে নির্বাচিত সংসদ সদস্য নির্বাচিত হই। ১০ বছর পর আবার যখন সুযোগ এসেছে তাই আমি আপনাদের কাছে স্বতন্ত্র প্রার্থী হয়ে ঈগল মার্কায় নির্বাচিত হয়ে সংসদে যেতে চাই। আপনাদের ভালো-মন্দ সংসদে তুলে ধরতে চাই। তাই আপনাদের কাছে ঈগল মার্কায় একটি করে ভোট চাই।

এ সময় আরও বক্তব্য রাখেন সাভার উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক আলী হায়দার, আশুলিয়া থানা আওয়ামী লীগের ১ নং যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও সাভার উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান মো. শাহাদাৎ হোসেন খান, সাভার সদর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মো. সোহেল রানা সহ প্রমুখ।

সাভারের ব্যাংটাউন এলাকায় নির্বাচনী প্রচার প্রচারনা শেষে আওয়ামী লীগের প্রবীণ নেতা সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান আশরাফ উদ্দিন খান ইমুকে দেখতে তার বাসভবনে যান মুরাদ জং শারীরিক অবস্থার খোজ খবর নেন।