ঢাকা | মে ২১, ২০২৪ - ১০:০৪ পূর্বাহ্ন

শিরোনাম

আমি ভাইসা আসি নাইঃ মুরাদ জং

  • আপডেট: Wednesday, December 20, 2023 - 5:31 pm

ইউসুফ আলী খান।।

লা ইলাহা ইল্লাল্লাহ মুহাম্মাদুর রাসুলুল্লাহ ঈগল এর মালিক তুই আল্লাহ। দীর্ঘ দশ বছর পর্যন্ত মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা আমাকে বলেছিলেন চুপ থাকো আমি চুপ ছিলাম। আজকে ২০২৩ আমার বোন মাননীয় প্রধানমন্ত্রী যখন বলেছে ‘আসো কে জনপ্রিয় প্রমান করো’ তাইতো আমি এসেছি। কেউ কেউ কইছে সাভার আশুলিয়ার রাজনীতিতে মুরাদ শেষ । আমি কি রোহিঙ্গা? আমি এখানে ভাইসা আসি নাই আমার বাড়ি আশুলিয়া আমি লাল মাটির সন্তান।

আগামী ৭ তারিখে আমরা রেডি আছি তোমরা আইয়োও। দীর্ঘ ১০ বছর পর সাভারে এসে নিজ নির্বাচনী এলাকা আশুলিয়ার উত্তর গাজীরচট হাজী সৈয়দ খান স্কুল এন্ড কলেজ মাঠে বেলা ২ টায় নির্বাচনী প্রচারণায় এসব কথা বলেন ঢাকা-১৯ (সাভার আশুলিয়া) আসনের স্বতন্ত্রপ্রার্থী ও সাবেক সংসদ সদস্য তালুকদার তৌহিদ জং মুরাদ।

এসময় তিনি বলেন, আমার বাবা দুইবার এই এলাকায় নৌকা প্রতীকে এমপি নির্বাচিত হয়েছিলেন। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী আমার নেত্রী শেখ হাসিনা আমাকে ভালোবেসে তিনবার নৌকার মনোনয়ন দিয়েছেন এবং ২০০৮ সালে দেশের সর্বোচ্চ ভোট দিয়ে আপনারা আমাকে নির্বাচিত করে সংসদে পাঠিয়েছিলেন। আমি কখনো ভাবিনাই আমাকে এভাবে এখানে আসতে হবে। আমি ভেবেছিলাম আমি নৌকা নিয়েই আবার আসবো। আমি দশ বছর কোন কথা বলিনাই। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী এতদিন চুপ থাকতে বলেছিলেন এবার বললেন মুখ খুলো তাইতো মুখ খুললাম। আমিতো নৌকাই আছি খালি মার্কাটা হইলো ঈগল।

তিনি আরো বলেন, আমি আপনাদের কিছু প্রশ্ন করতে চাই, রানা প্লাজা কি আমি ফালাইছি? রানা প্লাজা কি আমি বানাইছি? ওইটার মালিক কি আমি? ওইখানে আমার কি কোন ব্যবসা ছিলো? ওই মার্কেটটা কি আমার শাসন আমলে বানানো হয়েছিলো? তাহলে কেন আমাকে দোষারোপ করা হইলো? আমি মানুষ না? আমার কস্ট লাগেনা? আমার জন্য কি মায়া লাগেনা আপনাদের? আপনারা বুকে হাত দিয়া কন আমি যখন এমপি ছিলাম তখন কোনদিন কি আপনাদের অসম্মান করেছি? কেও কোন কাজে আসলে তার সাথে কি খারাপ ব্যবহার করেছি? আমার কাছে আসতে কি কারো কোন অনুমতি লাগে ?আমার পক্ষে যতটুকু করার করেছি। তাই আমি আজকে দাবি নিয়ে বলতেছি আপনারা দয়া কইরা আমার নির্বাচনটা কইরা দেন।

 

এদিকে, দীর্ঘদিন পর মুরাদ জংয়ের আশুলিয়ার উত্তর গাজীরচট আসার বিষয়টি জানতে পেরে বেলা ১০ টা থেকে বিভিন্ন এলাকার নেতা-কর্মীরা তাঁকে বরন করার উদ্দেশ্যে উত্তর গাজী চট হাজী সৈয়দ খান মডেল স্কুলে জরো হতে থাকেন। তাঁরা মোটর শোভাযাত্রা ও পায়ে হেঁটে স্কুল মাঠে উপস্থিত হন। ওই বাসভবনের দিকে রওনা হন।

আশুলিয়া থানা আওয়ামী লীগের ১নং যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও সাভার উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান শাহাদাত হোসেন খানের সঞ্চালনায় উক্ত অনুষ্ঠানে আরো উপস্থিত ছিলেন, সাভার উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক আলী হায়দার, আশুলিয়া ইউনিয়নের চেয়ারম্যান শাহাবুদ্দিন মাদবর, আওয়ামী লীগের প্রবীণ নেতা মোবারক হোসেন খান, আশুলিয়া ইউনিয়ন পরিষদের সদস্য হোসেন আলী মাস্টার, আশুলিয়া থানা আওয়ামী লীগের অন্যতম সদস্য সিরাজুল ইসলাম দেওয়ান, ধামসোনা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক হারুন ভান্ডারী, অন্যতম সদস্য হাজী মোহাম্মদ আতাউর রহমান খান, যুবলীগ নেতা সোলাইমান, আশুলিয়া থানা ছাত্রলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আরিফুল ইসলাম আরিফ, বিজয় মোহাম্মদ সাগর খান, আওয়ামী লীগ, যুবলীগ, ছাত্রলীগ, কৃষকলীগ সহ বিভিন্ন অঙ্গ সংগঠনের নেতাকর্মীরা এ সময় উপস্থিত ছিলেন।