ঢাকা | জুন ২২, ২০২৪ - ৯:২৮ পূর্বাহ্ন

শিরোনাম

পরকীয়ার কারণে নান্নুর পুরুষাঙ্গ কেটে নেয় মালিক সুমন

  • আপডেট: Sunday, November 5, 2023 - 12:58 pm

ইউসুফ আলী খান।।

ঢাকার শিল্পাঞ্চল আশুলিয়ার চিত্রশাইল এলাকায় নান্নু নামে এক যুবকের পুরুষাঙ্গ কেটে ফেলার ঘটনায় সুমন নামে এক ব্যক্তি কে আটক করেছে পুলিশ।

রবিবার ৫ নভেম্বর দুপুর আনুমানিক বারোটার দিকে আশুলিয়ার চিত্রশালই এলাকায় এই ঘটনা ঘটে।

এলাকাবাসী সূত্রে জানা যায় সুমনের ক্যাপ তৈরির কারখানায় শ্রমিক হিসেবে কাজ করতেন নান্নু। সেই সুবাদে অভিযুক্ত সুমনের স্ত্রীর সাথে প্রেমের সম্পর্ক তৈরি হয় নান্নুর। পরবর্তীতে সেই সম্পর্ক শারীরিক সম্পর্কে রুপ নেয়। সুমন ঘটনাটি জানতে পেরে নান্নু কে সতর্ক করে বলে এই ঘটনা যেন এখানেই শেষ হয়ে যায়।

পরবর্তীতে ০৫ নভেম্বর দুপুর ১২ দিকে নান্নু কে পরকিয়ার জন্য ডেকে আনে সুমন এর স্ত্রী । এসময় সুমন বাসায় এসে তাদের কে অপ্রীতিকর অবস্থায় দেখতে পায়। অপ্রীতিকর অবস্থায় দেখতে পেয়ে লোকজন ডেকে নিয়ে এসে নান্নুকে মারধর করে সুমন ও তার সহযোগীরা। নান্নুর শরীরের বিভিন্ন জায়গায় নীলা ফোলা কালো জখম হয় এবং নাকের হার আঘাতের ফলে ভেঙে যায়। এক পর্যায় নান্নু প্রাণ ভিক্ষা চাইলে তার উপরও চলে আরো অমানুষিক নির্যাতন। পরবর্তীতে সুমন এবং তার সহযোগীরা ধারালো ছুরির মাধ্যমে নান্নুর পুরুষাঙ্গ কেটে দেয়। অত্যাচারে নান্নু জ্ঞান হারিয়ে ফেলেন তৎক্ষণাৎ এলাকার স্থানীয় লোকজন সহ সুমন নান্নু কে নিকটবর্তী আশুলিয়া নারী ও শিশু স্বাস্থ্য কেন্দ্রে নিয়ে যায়। নান্নুর শারীরিক অবস্থার অবনতি হলে উন্নত চিকিৎসার জন্য সাভারের এনাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল পাঠায়।

এসময় ভুক্তভোগী নান্নু বলেন, সুমন ও তাঁর সহযোগীরা ধারালো ছুড়ি দিয়ে তার পুরুষাঙ্গ কেটে দিয়েছেন। পরে সুমন নিজে বাঁচতে আমার নামে মিথ্যা অভিযোগ দায়ের করতে তার স্ত্রীকে আশুলিয়া থানায় পাঠান। তার স্ত্রী আশুলিয়া থানায় এসে অভিযোগ করে বলেন, আমি তাকে ধর্ষণ করার চেষ্টা করলে সে বাধ্য হয়ে আমার পুরুষাঙ্গ সে কেটে দিয়েছে।

খবর পেয়ে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন আশুলিয়া থানার উপ পরিদর্শক (এস আই) নুর খান। ঘটনার সততা পেয়ে সুমনকে আটক করা হয়। এ সময় নান্নুর কাঁটা পুরুষাঙ্গ এবং ধারালো ছুড়ি উদ্ধার করা হয়।