ঢাকা | জুন ২২, ২০২৪ - ৯:৪৫ পূর্বাহ্ন

শিরোনাম

কাশিমপুর প্রেসক্লাবের সভাপতি আমজাদের বিরুদ্ধে মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সমাবেশ

  • আপডেট: Sunday, September 24, 2023 - 3:06 pm

সিনিয়র রিপোর্টার।। গাজীপুর মহানগর কাশিমপুর প্রেসক্লাবের সভাপতি আমজাদ হোসেনের বিরুদ্ধে মানববন্ধন করেছেন ক্লাবের সদস্যসহ স্থানীয় সাংবাদিকরা।

রোববার (২৪ সেপ্টেম্বর) দুপুরে গাজীপুর জেলা প্রশাসক এর কার্যালয়ের সামনে মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়।

মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সমাবেশে কাশিমপুর প্রেসক্লাবে বর্তমান কমিটির সদস্য ও সাধারণ সদস্য এবং ভুক্তভোগী সাংবাদিকরা বলেন, ও প্রতিবাদ সমাবেশ বক্তরা বলেন, ২নং ওয়ার্ড এর লোহাকৈর মদিনাতুল উলুম মাদ্রাসার শিক্ষার্থীকে নির্মম নির্যাতনের একটি ঘটনা ঘটে। সেই ঘটনার সংবাদ সংগ্রহ করতে যায় প্রেস ক্লাবের সদস্যসহ স্থানীয় গণমাধ্যমকর্মী।

এই ঘটনায় জড়িত মাদ্রাসা কর্তৃপক্ষের সাথে আঁতাত করে বিষয়টি ধামাচাপা দেওয়ার জন্য সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে অপপ্রচার করেন কাশীমপুর প্রেসক্লাবের সভাপতি মোঃ আমজাদ হোসেন।

বক্তরা আরও বলেন, কাশিমপুর প্রেসক্লাবে একক আধিপত্য বিস্তার করার জন্য এবং নিজের অপকর্ম ডাকার জন্য ক্লাবের সদস্য ও বিভিন্ন সাংবাদকর্মীদের বিরুদ্ধে মিথ্যা অপপ্রচার করেন তিনি। এছাড়াও তার নিজের ফেসবুক আইডি থেকে একটি সিসি টিভির ফুটেজকে বিভিন্ন ভাবে কেটে প্রচার করায় তার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাই। একই সঙ্গে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবী করছি।

এসময় কাশিমপুর প্রেসক্লাবের সাবেক সাধারণ সম্পাদক ও বর্তমান সদস্য বাংলা টিভির কাশিমপুর প্রতিনিধি হাসান সরকার বলেন, গত ১৭ সেপ্টেম্বর কাশিমপুর ২ নং ওয়ার্ড এর লোহাকৈর এলাকার মদিনাতুল উলুম মাদ্রাসার সহকারী শিক্ষক একটি সাত বছরের শিশুকে নির্মম ভাবে শারীরিক নির্যাতন করে মাথায় তুলে আছাড় মারে। এতে সে বাচ্চাটি মারাত্মক ভাবে আহত হয় এবং তাকে গাজীপুর শহিদ তাজ উদ্দিন মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য ভর্তি করা হয়েছিলো। সে তথ্য সংগ্রহ করতে গেলে শিক্ষক শামীম পুলিশের কথা শুলে পালিয়ে যেতে চাইলে তাকে ধমক দিয়ে বাসানো হয়। পরে কাশিমপুর থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে অভিযুক্ত শিক্ষককে আটক করে। এই ঘটনাকে ধামাচাপা দেওয়ার জন্য মাদ্রাসা কর্তৃপক্ষের সাথে আঁতাত করে কাশিমপুর প্রেসক্লাবের সদস্য ও অন্যান্য সাংবাদিকদের নিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ফেসবুকে অপপ্রচার করে। তার এধরণের স্বৈরাচারী কর্মকাণ্ডের বিরুদ্ধে তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাই।

তিনি আরও বলেন, এ ঘটনাকে কেন্দ্র করে কাশিমপুর প্রেসক্লাবে সভাপতি মোঃ আমজাদ হোসেন আমাদের মান সম্মান কে নষ্ট করে একটি মামলাও করেছেন বলে জানতে পারি। তার এধরণের স্বৈরাচারী কর্মকাণ্ডের জন্য আমি বিভিন্ন আইন প্রয়োগকারী সংস্থার কাছে অনুরোধ ঘটনার সততা যাচায় করে দোষীব্যক্তিদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য এবং দেশের সকল সাংবাদিক ভাই বোনদের কাছে এধরণের স্বার্থলোভী, দুর্নীতিবাজ, চাঁদাবাজ সাংবাদিক আমজাদ হোসেন এর বিরুদ্ধে সোচ্চার থাকার আহ্বান জানান তিনি।

এসময় উপস্থিত ছিলেন, কাশিমপুর প্রেসক্লাবের সাবেক সাধারণ সম্পাদক মোঃ হাসান সরকার, বর্তমান কমিটির যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আরিফুল ইসলাম শাহীন, সহ- সাংগঠনিক সম্পাদক মোত্তাকিম সিকদার রাজীব, কার্যকরী সদস্য মানসুরা আক্তার কাকলি, সদস্য মোঃ আসিফ, মোঃ ইউসুফ আলী খানসহ প্রমুখ।

এছাড়া আরও উপস্থিত ছিলেন, সাংবাদিক বিল্লাল হোসেন সাজু, নুরে আলম সিদ্দিক মানু, মোঃ জামাল আহমেদ, শাহাজুদ্দিন আহমেদ সুমন, রবিউল হোসেন, সেকেন্দার আলী, এম এ আজিজ, নাসির উদ্দিন, বিপ্লব হোসেন ফারুকসহ গাজীপুর জেলার বিভিন্ন প্রিন্ট ও ইলেকট্রিক মিডিয়ার সাংবাদিকগণ।

মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সভা শেষে গাজীপুর জেলা প্রশাসক, গাজীপুর জেলা তথ্য ও সম্প্রচার অধিদপ্তর, পুলিশ কমিশনার ও কাশিমপুর থানায় স্মারক লিপি প্রদান করা হয়।