ঢাকা | জুন ২২, ২০২৪ - ৯:২৭ পূর্বাহ্ন

শিরোনাম

বিএনপি নেতাদের পাচারকৃত অর্থ ফেরত আনার চেষ্টা চলছে: প্রধানমন্ত্রী

  • আপডেট: Thursday, July 20, 2023 - 1:50 pm

জাগো জনতা অনলাইন : বিএনপি নেতাদের পাচার করা অর্থ ফেরত আনার চেষ্টা চলছে বলে জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

তিনি বলেছেন, “বিএনপির অনেক নেতার টাকা (বিদেশি ব্যাংকে) জমে আছে। আমরা ধীরে ধীরে এগুলো ফিরিয়ে আনার চেষ্টা করছি।”

বুধবার (১৯ জুলাই) গণভবনে আওয়ামী লীগের নেতৃত্বাধীন ১৪ দলীয় জোটের বৈঠকে এসব কথা বলেন তিনি।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, “খালেদা জিয়ার দুই ছেলে তারেক রহমান ও আরাফাত রহমান কোকোর দুর্নীতি প্রকাশ্যে আসার আগেই বিদেশিরা এবং একজন এফবিআই এজেন্ট তারেকের বিরুদ্ধে মানি লন্ডারিং মামলায় সাক্ষ্য দেন।”

তিনি বলেন, “তাদের (তারেক রহমান ও আরাফাত রহমান কোকো) বিদেশে পাচারের পরিমাণ থেকে সরকার ৪০ কোটি টাকা ফেরত দিতে পেরেছে। কিন্তু সমস্যা হলো তারা টাকা যে দেশে জমা করেছে সেখান থেকে টাকা ফেরত আনা কঠিন বিষয়। দেশগুলো টাকা ছাড়তে চায় না।”

সরকারপ্রধান বলেন, “আমরা অন্তত দাবি করতে পারি গত সাড়ে ১৪ বছরে বাংলাদেশ অনেক বদলে গেছে। সরকার সফলভাবে দারিদ্র্যের হার ২০০৬ সালের ৪১ থেকে এখন ১৮.৬% এ নামিয়ে এনেছে এবং চরম দারিদ্র্যের হার ২৫.১ থেকে ৫.৭% এ নামিয়ে এনেছে।”

তিনি আরও বলেন, “সরকার ফসল, মাছ, মাংস ও শাকসবজিসহ খাদ্যের উৎপাদন বাড়াতে সক্ষম হয়েছে। পাশাপাশি ৬ লাখ ভূমিহীন পরিবারকে বিনামূল্যে আধা-পাকা ঘর করে দিয়েছে। বিদ্যুৎ উৎপাদন ক্ষমতা উল্লেখযোগ্যভাবে বৃদ্ধি করে প্রতিটি ঘরে বিদ্যুৎ সুবিধা পৌঁছে দিয়েছে। আমরা সাড়ে ১৪ বছরে বিদ্যুৎ উৎপাদন ক্ষমতা ২৫ হাজার মেগাওয়াটে উন্নীত করেছি “

সরকার কর্মসংস্থান সৃষ্টির জন্য ১০০টি বিশেষ অর্থনৈতিক অঞ্চল স্থাপন করছে উল্লেখ করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, “দেশে বেকারত্বের হার মাত্র ৩% এ নেমে এসেছে। বেকারত্বের হার আরও কমিয়ে আনতে তরুণদের বিভিন্ন উদ্দীপনা প্যাকেজ ও প্রশিক্ষণ প্রদানের মাধ্যমে উদ্যোক্তা তৈরির পদক্ষেপ অব্যাহত রেখেছে সরকার।”

শেখ হাসিনা বলেন, “আমরা শুধু বাংলাদেশের অবকাঠামোগত উন্নয়নই নয়, এর আর্থ-সামাজিক উন্নয়নের জন্যও ব্যাপক কাজ করেছি এবং বাস্তবায়ন করেছি। বাংলাদেশ আজ সারা বিশ্বে উন্নয়নের রোল মডেল হিসেবে বিবেচিত।”

সূত্র-ইউএনবি