ঢাকা | মে ২০, ২০২৪ - ১০:০৬ অপরাহ্ন

শিরোনাম

ঢাকায় সফরের আগে ওয়াশিংটনে উজরার তৎপরতা

  • আপডেট: Saturday, July 8, 2023 - 9:34 am

মোঃ খায়রুল আলম খানঃ ঢাকা সফরে যাওয়ার আগে ওয়াশিংটনে ব্যস্ত সময় কাটাচ্ছেন যুক্তরাষ্ট্রের বেসামরিক নিরাপত্তা, গণতন্ত্র এবং মানবাধিকার সংক্রান্ত আন্ডার সেক্রেটারি উজরা জেয়া। তিনি ওয়াশিংটনে বৈঠক করেছেন ওয়াশিংটনে নিযুক্ত বাংলাদেশি রাষ্ট্রদূত মুহাম্মদ ইমরান ও ভারতীয় রাষ্ট্রদূত তারাজিৎ সিং সান্ধুর সঙ্গে। বাংলাদেশ সফরের আগে তার এই ব্যস্ততা নিয়ে রাজনৈতিক অঙ্গনে ব্যাপক আগ্রহের সৃষ্টি হয়েছে। শুক্রবার নিজেই এক টুইটার পোস্টে বাংলাদেশি রাষ্ট্রদূতের সঙ্গে বৈঠকের কথা জানান। বাংলাদেশি রাষ্ট্রদূতের সঙ্গে তার একটি ছবি প্রকাশ করে তিনি লিখেন- গণতন্ত্র, মানবাধিকার, শ্রমের ন্যায্য চর্চা এবং মানবিক সহযোগিতা প্রসঙ্গে ফলপ্রসূ আলোচনার জন্য রাষ্ট্রদূত মুহাম্মদ ইমরানকে ধন্যবাদ। আমি দুই দেশের শক্তিশালী অংশীদারিত্ব আরও গভীর করার জন্য উন্মুখ।

এর আগেই যুক্তরাষ্ট্রে নিযুক্ত ভারতীয় রাষ্ট্রদূত তারাজিত সিং সান্ধুর সঙ্গেও বৈঠক করেন উজরা জেয়া। বৈঠকের আলোচ্য বিষয় ছিল ইন্দো-প্যাসিফিক অঞ্চল। কীভাবে ভারত ও যুক্তরাষ্ট্রের সম্পর্ক আরও গভীর করার মধ্য দিয়ে ইন্দো-প্যাসিফিক অঞ্চল উপকৃত হতে পারে তা নিয়েই আলোচনা করেন উজরা জেয়া ও তারাজিত সিং। এক টুইট বার্তায় উজরা জেয়া বলেন, প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির সামপ্রতিক যুক্তরাষ্ট্র সফরের পরপরই ওয়াশিংটনে নিযুক্ত ভারতীয় রাষ্ট্রদূতের সঙ্গে বৈঠক হলো। বৈঠকে আমি ইন্দো-প্যাসিফিক অঞ্চলকে আরও উন্মুক্ত, মুক্ত, সমৃদ্ধ এবং নিরাপদ করতে আমাদের যৌথ প্রচেষ্টা নিয়ে আলোচনা করেছি।

এমন সময় ভারত ও বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূতদের সঙ্গে উজরা জেয়া এই বৈঠক করেছেন, যার কয়েক দিনের মধ্যেই তার বাংলাদেশ সফরের কথা রয়েছে।

আগামী ১১ থেকে ১৪ জুলাই বাংলাদেশ সফরে আসবেন যুক্তরাষ্ট্রের বেসামরিক নিরাপত্তা, গণতন্ত্র এবং মানবাধিকার সংক্রান্ত আন্ডার সেক্রেটারি উজরা জেয়া। তিনি যে মার্কিন প্রতিনিধিদলের নেতৃত্ব দেবেন- তাতে রয়েছেন মার্কিন পররাষ্ট্র দপ্তরের দক্ষিণ ও মধ্য এশিয়া বিষয়ক সহকারী পররাষ্ট্রমন্ত্রী ডনাল্ড লু এবং ইউএসএআইডি’র এশিয়া ব্যুরোর ডেপুটি অ্যাসিস্ট্যান্ট অ্যাডমিনিস্ট্রেটর অঞ্জলি কৌর।
সামনেই বাংলাদেশের জাতীয় সংসদ নির্বাচন। এই নির্বাচনের আগে তার এই সফর আলাদা গুরুত্ব পাচ্ছে। যদিও বাংলাদেশের পররাষ্ট্র সচিব মাসুদ বিন মোমেন বলেছেন, যুক্তরাষ্ট্রের উচ্চপর্যায়ের এ প্রতিনিধিদলের সফর বাংলাদেশের জাতীয় নির্বাচনকেন্দ্রিক নয়। তবে অন্যান্য বিষয়ের সঙ্গে নির্বাচন নিয়ে আলোচনা হতে পারে।