ঢাকা | মে ২৩, ২০২৪ - ১২:০২ অপরাহ্ন

শিরোনাম

চুরি হওয়া মালামালসহ চোর চক্র আটক

  • আপডেট: Tuesday, June 20, 2023 - 5:37 pm

ইউসুফ আলী খানঃ ঢাকার অদুরে সাভারে পুলিশের বুদ্ধিমত্তায় অভিনব পন্থায় চুরির সাথে জড়িত চোর চক্র ও তাদের গডফাদারদের গ্রেফতার করা হয়েছে। সাথে মাদক ব্যবসায়ী গডফাদারদের কাছ থেকে বাকিতে বিক্রি করা মাদকদ্রব্য হিরোইনের টাকার বিনিময়ে পরিশোধ করা বিভিন্ন বাসা বাড়িতে চুরি হওয়া স্বর্ণালঙ্কার, নগদ অর্থ ও মূল্যবান দ্রব্য সামগ্রী উদ্ধার করেছে পুলিশ।

শুক্রবার (১৬ জুন) দুপুর ১২ টার দিকে সাভার মডেল থানা চত্বরে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে বিষয়টি নিশ্চিত করেন ঢাকা জেলার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (ক্রাইম অফস্ ও ট্রাফিক উত্তর) আব্দুল্লাহিল কাফী (পিপিএম)।

সংবাদ সম্মেলনে তিনি বলেন, ঢাকা জেলা পুলিশ সুপারের নির্দেশে সাভার মডেল থানায় দায়ের হওয়া একটি চুরির মামলা তদন্ত করতে গিয়ে অভিনব যৌথ এক মাদক সেবী চোর চক্র ও মাদক সিন্ডিকেটের সন্ধান পায় সাভার মডেল থানা পুলিশ। চোর চক্রটি বাকিতে মাদক গ্রহণের পর বিভিন্ন বাসা বাড়িতে চুরি করে সেই অর্থ মাদক সিন্ডিকেট সদস্যদের চুরি করা মালামাল দিয়ে পরিশোধ করতো। পরে তাদের অবস্থান সনাক্ত করে সাভার ও আশুলিয়ায় অভিযান চালিয়ে এই চোর চক্রের ৪ সদস্য এবং মাদক সিন্ডিকেটের ৪ সদস্যকেকে গ্রেফতার করা হয়। সেইসঙ্গে চুরি হওয়া ১০ ভরি স্বর্ণালংকার, নগদ অর্থ ও বাড়ির মূল্যবান সামগ্রী উদ্ধার করে সাভার মডেল থানার এসআই মজিবুর রহমান ভূঁইয়া ও এসআই রাসেল মিয়ার নেতৃত্বে পুলিশের একটি চৌকস টিম।

পুলিশ আরো জানায়, সাভার ও আশুলিয়ায় এই প্রথম এমন ঘটনার সাক্ষী হলো আইনশৃঙ্খলা বাহিনী। মাদক সেবনের বিনিময়ে চুরি করার মতো ঘটনা আমাদের সবাইকে অবাক করেছে। এসবের মূলে মাদকের প্রভাব বিদ্যমান রয়েছে। আর এমন অপরাধ দমনে আরো সক্রিয় ভূমিকায় কাজ করে যাচ্ছে ঢাকা জেলা পুলিশ।

গ্রেফতারকৃত চোর চক্রের সক্রিয় সদস্যরা হলেন, পটুয়াখালী জেলার বাউফল থানার মাদবরবাড়ি নুরাইনপুর এলাকার সবুজ মিয়ার ছেলে মোঃ সোহেল (৩০)। কুষ্টিয়া জেলার দৌলতপুর থানার তারাগুনিয়া গ্রামের মোঃ রিপন ওরফে চান্দি রিপন (৪০)। নরসিংদী জেলার মনোহরদী থানার চন্ডীতলা গ্রামের মৃত তোতা মিয়ার ছেলে মোঃ হাসেম ড্রাইভার(৩৫)। ময়মনসিংহ জেলার মুক্তাগাছা থানার রামভদ্রপুর গ্রামের আলী আজগরের ছেলে মোঃ রবিউল ইসলাম (৩০)। তাদের সবাইকে বাকিতে মাদকদ্রব্য হিরোইন সেবন করিয়ে বিভিন্ন বাসা বাড়িতে চুরি করিয়ে নগদ অর্থ ও স্বর্ণালংকার হাতিয়ে নিয়ে আসছিল মোঃ স্বপন ও রাজা মিয়ার একটি সিন্ডিকেট।

গ্রেফতারকৃতদের মধ্যে বাকিতে মাদকদ্রব্য বিক্রয়ের সাথে জড়িত গডফাদাররা হলেন, ঢাকা জেলার ধামরাই থানার রূপনগর গ্রামের মৃত তুরাব আলীর ছেলে মোঃ স্বপন (৪৮) ও তার স্ত্রী আঞ্জু বেগম (৩৫), ঢাকা জেলার আশুলিয়া থানার বাইপাইল প্রেসক্লাব সংলগ্ন এলাকার মৃত আজিম উদ্দিনের ছেলে মোঃ রাজা মিয়া(৪০), একই এলাকার রাজা মিয়ার বন্ধু আব্দুল গফুর মন্ডলের স্ত্রী নাসিমা বেগম (৩৫)।

এদিকে সাভার মডেল থানায় দায়ের হওয়া ছিনতাইয়ের আরেকটি মামলায় জড়িত তিনজনকে অভিযান চালিয়ে গ্রেফতার করা হয়েছে। তাদের হেফাজতে থাকা ছিনতাইকৃত একটি মোবাইল ও নগদ অর্থ উদ্ধার করেছে এসআই সুদীপ কুমার গোপ ও এসআই ইমরান শেখের নেতৃত্বে পুলিশের একটি চৌকস টিম। গ্রেফতারকৃত ছিনতাইকারীরা হলেন, পাবনা জেলার মিটন পশ্চিম পাড়া গ্রামের আব্দুল মতিনের ছেলে মোঃ সোহাগ (৩০), ঢাকা জেলার সাভার থানার সদর ইউনিয়নের দেওগাঁ এলাকার মৃত এনায়েত হোসেনের ছেলে রাফসান জনি রাফি (২৩), একই এলাকার মৃত সৈয়দ আনোয়ারুল হাসানের ছেলে সৈয়দ রবি হাসান (২২)।

পুলিশের ডেটাবেজ ম্যানেজমেন্ট সিস্টেম এর সহযোগিতায় গ্রেফতার হওয়া আসামিদের পিসি-পিআর ঘেঁটে চোর চক্র, মাদক সিন্ডিকেট ও ছিনতাইকারী চক্রের ১১ সদস্যের বিরুদ্ধে সাভার- আশুলিয়া ও দেশের বিভিন্ন থানায় একাধিক মামলার তথ্য জানিয়েছে ঢাকা জেলা পুলিশ।

সংবাদ সম্মেলনে সাভার মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) দীপক চন্দ্র সাহা পিপিএম, পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) আব্দুর রাশিদ, পুলিশ পরিদর্শক (ইন্টেলিজেন্স) আব্দুল্লা বিশ্বাস, এস আই সুদীপ কুমার গোপ, এস আই মজিবর রহমান ভূঁইয়া, এস আই রাসেল মিয়া সহ অন্য পুলিশ কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন